গ্রীষ্মকাল, শনিবার, ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১:৩৫
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

ফ্লাডলাইটে মডেল ভিলেজ হবে সীমান্ত এলাকা…

admin

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

জঙ্গি ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে এবার বাংলাদেশ ও পাকিস্তান সীমান্তে ফ্লাডলাইট বসাল ভারত। দুই দেশের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সীমান্ত বরাবর মোট ৬৪৭ কিলোমিটার দীর্ঘ এলাকায় এই আলো বসানো হয়েছে। গত এক বছর ধরে এই আলো বসানোর কাজ চলেছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর ফলে সীমান্তে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর পক্ষে আরো ভাল নজরদারি করা সম্ভব হবে। সেই সঙ্গে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর নজর এড়িয়ে রাতের অন্ধকারে গা ঢাকা দিয়ে অনুপ্রবেশ করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ‘সীমান্ত উন্নয়ন এবং অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প বাবদ সরকারের পক্ষে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে’।

জানা যায়, এই প্রকল্প বাবদ ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে গত তিন বছরে ৫১৮৮ কোটি রুপি অনুমোদিত হয়েছিল। এর মধ্যে ভারত-বাংলাদেশ এবং ভারত-পাক সীমান্তের জন্য ২১৩৮ কোটি রুপি দেয়া হয়েছে। যার মধ্যে ২০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া, ৪৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত সড়ক নির্মাণ, ৬৪৭ কিলোমিটার বিস্তীর্ণ সীমান্তে আলো বসানো এবং ১১০টি বর্ডার আউটপোস্ট (বিওপি) নির্মাণ।

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্ত রয়েছে ৪০৯৬ কিলোমিটার, পাকিস্তান সীমান্ত রয়েছে ৩৩২৩ কিলোমিটার, চীনের সঙ্গে আছে ৩৪৮৮ কিলোমিটার। ভারত-চীন সীমান্ত বরাবর ২৭টি সীমান্ত সড়ক নির্মাণের জন্য ২০০৮ সালেই অনুমোদন দিয়েছিল ভারত সরকার। এর মধ্যে প্রথম আটটি সড়ক নির্মাণ করা হয় ২০১৪-১৫ সালে, বাকিগুলো চলতি বছরের শেষের দিকেই তৈরি হয়ে যাবে আশা করা হচ্ছে।

সবরাষ্ট্র মন্ত্রাণলয় সূত্রে জানা যায়, সীমান্তবর্তী এলাকায় এবার মডেল ভিলেজ তৈরি করা হবে বলে নতুন ভাবনাচিন্তা নিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। জম্মু-কাশ্মীরসহ ভারতের সাতটি সীমান্তবর্তী রাজ্যগুলোতে ৪১টি মডেল ভিলেজ নির্মাণ বাবদ ৯২ কোটি রুপি অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। প্রতিবেশি দেশগুলোর সঙ্গে সীমান্ত বাণিজ্য বৃদ্ধি ও মানুষে মানুষে যোগাযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে পেট্রাপোল-বেনাপোল সুসংহত চেকপোস্টের মতো আরো কয়েকটি নতুন আইসিপি নির্মাণের চিন্তাভাবনাও নিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।

মনির জামান ০৮-০৬-১৭-০০-৩০

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।