গ্রীষ্মকাল, শনিবার, ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১:৪৬
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

ছাত্রদের ক্লাস নিচ্ছে এরশাদ,,…

admin

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের পথে। শিক্ষক ক্লাস নিচ্ছে, আর ছাত্ররা পিছনে বসে ইন্টারনেটে পর্ণ ছবি দেখছে। খুনিরা আজ বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ধর্ষণকারীরা উল্টো দাম্ভিকতা করছে। লোডশেডিং, আইন-শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি। সমাজের সর্বত্রই অরাজকতা চলছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে শরীয়াহ আন্দোলন বাংলাদেশ আয়োজিত ‘নৈতিকতা বিবর্জিত সমাজ ব্যবস্থাই সকল সন্ত্রাসের জন্মদাতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এরশাদ বলেন, সামনে রমজান, বিদ্যুতের কি অবস্থা? সেহরি ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ বিভ্রান্তি হলে মানুষের ভোগান্তির শেষ থাকবে না। সমাজের সর্বক্ষেত্রে অস্থিরতা। কারণ, আমরা ইসলাম থেকে দূরে সরে গেছি। ইসলামে বিধান রয়েছে হত্যার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। কিন্তু অনেক খুনিই আজ বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ধর্ষণকারীরাও উল্টো দাম্ভিকতা করছে।

নিজের জোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সব ইসলামী দল এখনও আমাদের সাথে আসেনি। এখনও দ্বিধা-দণ্ড। কিসের দ্বিধা? আমি ইসলামের জন্য অনেক কিছু করেছি। শুক্রবারকে সাপ্তাহিক ছুটি, ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম, মসজিদ-মাদ্রাসা-মন্দিরে পানি ও বিদ্যুৎ বিল মওফুক করেছি। ইসলামের বিরুদ্ধে কথা বললে সহ্য হয় না। দেশকে সামাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষা করতে এবং ইসলাম প্রতিষ্ঠা করতে আমাদের নেতৃত্বে বাকী ইসলামী দলগুলো ঐক্যবদ্ধ হন। কথা দিলাম আজীবন আমি আপনাদের সাথে থাকবো।

তিনি আরও বলেন, আজ ইসলামের কথা বললে, কুরআন-রাসূলের কথা বললে আমরা মৌলবাদী। নাস্তিকরা যদি নবী-রাসূলের বিরুদ্ধে কথা বলে তারা মৌলবাদী নয়।

আমেরিকার সমালোচনা করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, লিবিয়া একটি শান্ত রাষ্ট্র। শুধু তেলের জন্য লিবিয়া ধ্বংস করে দিলেন। এই তেলের জন্য ইরাক, সিরিয়া ধবংশ করে দিলেন। লণ্ডনে হামলা প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, আমরা জানতাম এই হামলার মুসলমানের নাম আসবে। বলা হলো আইএস জড়িত। এই আইএস সৃষ্টি করেছে কে ? এই পশ্চিমারাই ইসলামকে দুষি করার জন্যই এই আইএস সৃষ্টি করেছে। ইসলামকে কেউ নিঃশেষ করতে পারবে না।

 

দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংসের পথে বলে মন্তব্য করে এরশাদ বলেন, শিশুরা মোবাইল আর ফেসবুকে আসক্ত। শিক্ষক ক্লাস নিচ্ছে, আর ছাত্ররা পিছনে বসে ইন্টারনেটে পর্ণ ছবি দেখছে। ইন্টারনেট আর ফেসবুক বন্ধ করতে হবে। যে পথে শিশুরা ধাবিত হচ্ছে তা জাতির জন্য অশনি সংকেত। শিক্ষকরা ছাত্রদের দিয়ে নকল করায়। গরু হোক আর গাধা হোক জিপিএ৫ পেতে হবে। সর্বত্রই অব্যবস্থাপনা চলছে।

জোটের সমালোচনাকারীদের উদ্দেশ্যে এরশাদ বলেন, ছোট গাছে বাতাস লাগে না, বড় গাছে বাতাস লাগে। অনেকে বাতাস দেয়ার চেষ্টা করছেন। মনে রাখতে হবে, বড় গাছে বাতাস লাগে কিন্তু ঢাল ভেঙ্গে না।

শরীয়াহ আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি রফিকুন্নবী হক্কানীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতি, জাতীয় ইসলামী মহাজোটের চেয়ারম্যান আবু নাছের ওয়াহেদ ফারুক, মাওলানা আব্দুল লতিফ চৌধুরী, মাওলানা মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, ফকরুল আহসান শাহাজাদা প্রমুখ।

২৫-০৫-২০১৭-০০-৮০-২৫-ম/জা/

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।