গ্রীষ্মকাল, মঙ্গলবার, ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৯শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, বিকাল ৪:০৯
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

আনন্দে নয়, প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে কনসার্ট ছাড়ে যুক্তরাজ্য…

admin

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার নগরীতে চলছে কনসার্ট। স্থানীয় সময় রাত তখন সাড়ে ১০টা। গাইছেন মার্কিন তারকা পপশিল্পী আরিয়ানা গ্রান্ড। চারদিকে সঙ্গীত আর আনন্দের মুর্ছনা। এর মধ্যেই হঠাৎ বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে উঠল ইউরোপের সবচেয়ে বড় অ্যারেনাটি।

মুহূর্তে পাল্টে গেল দৃশ্যপট। চারদিকে আবার হুল্লোড়। এবার আর আনন্দে নয়, প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে।

দুই মাসের মধ্যে যুক্তরাজ্যে এই দ্বিতীয় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন ১৯ জন। আহত প্রায় ৫০ জনের বেশি।

এদিকে হামলার পর পরই জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সমর্থকরা অনলাইনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে। যুক্তরাজ্যভিত্তিকক জঙ্গি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ সংস্থা ‘জিহাদওয়াচ’ আইএসের একটি টুইটের বরাতে জানায়, এ হামলা এক নতুন শুরুর ইঙ্গিত। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দাপ্তরিকভাবে এই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেনি আইএস।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, হামলার পর পরই ঘটনাস্থলে উপস্থিত ২৪ হাজার মানুষ বাঁচার জন্য ছোটাছুটি শুরু করে। ততক্ষণে রক্তে ভেসে গেছে অ্যারেনার একাংশ। এই তুমুল হট্টগোলের মধ্যে ঘটনাস্থলে একের পর এক আসতে থাকে অ্যাম্বুলেন্স ও বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল।

পুলিশের বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে,এক মিনিটের ব্যবধানে পরপর দুটি বিস্ফোরণ হয়েছে। এর মধ্যে একটি বিস্ফোরণ ঘটেছে কনসার্টের টিকিট বুথের পাশে। এ ছাড়া এ হামলাটিকে আত্মঘাতী হামলা বলেও সন্দেহ করছে পুলিশ।

এ ঘটনার ঠিক দুই মাস আগে গত ২২ মার্চ জঙ্গি হামলার শিকার হয়েছিল যুক্তরাজ্য। সে সময়ে দেশটির হাউস অব কমনসের পাশে ওয়েস্টমিনস্টার ব্রিজের ওপর গাড়ি নিয়ে উঠে পড়ে এক জঙ্গি। ওই হামলায় নিহত হয়েছিলেন পাঁচজন, আহত হয়েছিলেন ৪০ জনেরও বেশি মানুষ।

এদিকে ভয়াবহ এই হামলার পর দেশটিতে চলমান নির্বাচনী প্রচারণা স্থগিত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে এক বার্তায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি ও পরিবারের পাশে সর্বোতভাবে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করেছেন তিনি।

শোক ও সমবেদনা্ জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের বিরোধীদল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিনও। টুইট বার্তায় তিনি এই হামলাকে ন্যক্কারজনক বলে উল্লেখ করে ঘটনাস্থলে জরুরি সেবাদানকারীদের কাজের প্রশংসা করেছেন।

২৩-০৫-২০১৭-০০-৪০-২৩-অ/হা/

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।