গ্রীষ্মকাল, শনিবার, ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ১:০৮
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

রাশিয়া ও কোমি ট্রাম্পের অস্বস্তির নাম…

admin

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

রোজ যেন একের পর এক বোমা! কেউ কেউ আবার বলছেন, হোয়াইট হাউসে নিত্যনতুন নাটক। কদিন আগে দেশের গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা নথি ফাঁসের অভিযোগ। বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ: তিনি এফবিআইয়ের প্রাক্তন অধিকর্তা জেমস কোমিকে অনুরোধ করেছিলেন প্রাক্তন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে নিয়ে তদন্ত বন্ধ করে দিতে। কোমিরই লেখা এক নথি থেকে বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছে।

বুধবার মুখ না খুললেও কোমির নথি নিয়ে বিতর্ক ছড়াতেই ট্রাম্প বুধবার বলেন, ‘ইতিহাসে আর কোনও রাজনীতিবিদকে এতটা খারাপ বা অন্যায্যভাবে দেখা হয়নি।’

যে সূত্র কোমির ওই নথি সামনে এনেছে, তাদের দাবি, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ওভাল অফিসে এক বৈঠকে ফ্লিনকে নিয়ে তদন্ত বন্ধ করার কথা কোমিকে বলেছিলেন ট্রাম্প। ঠিক তার আগের দিন পদত্যাগ করেছেন ফ্লিন। বৈঠকে সে দিন মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবে প্রচণ্ড হতভম্ব হয়ে যান তদানীন্তন এফবিআই অধিকর্তা। তখনই তিনি বিষয়টি একটি নথিতে (মেমো) লিপিবদ্ধ করে রাখেন।

সেই নথিতে রয়েছে, ট্রাম্প কোমিকে বলেছেন, ‘উনি (মাইকেল ফ্লিন) ভাল লোক। আমার মনে হয়, এটা আপনি ছেড়ে দিতেই পারেন!’ কোমি তদন্ত প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য না করে শুধু বলেন, ‘হ্যাঁ মানছি উনি ভাল লোক।’

কোমিকে প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ফ্লিন কোনও ভুল করেননি। ঘটনা হল, ট্রাম্প শপথ নেয়ার আগে আমেরিকায় রুশ দূত সের্গেই কিসলিয়াকের সঙ্গে ফ্লিনের ফোনে কী কথা হয়েছিল, তা নিয়ে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের কাছে সঠিক তথ্য না দেয়ার অভিযোগে বরখাস্ত হন ফ্লিন। সূত্রের দাবি, কোমির মনে হয়েছিল, ট্রাম্প গোটা তদন্ত প্রক্রিয়াই থামাতে চেয়েছিলেন।

দু’দিন আগেই এক মার্কিন দৈনিক দাবি করে, সম্প্রতি হোয়াইট হাউসের বৈঠকে রুশ বিদেশমন্ত্রীর কাছে দেশের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা-নথি ফাঁস করে দেন ট্রাম্প। তার পরেই কোমির এই নথি প্রকাশ্যে আসায় হোয়াইট হাউসে বিড়ম্বনা ক্রমশই বাড়ছে। বুধবারও হোয়াইট হাউসের তরফে বলা হয়েছে, ওই অভিযোগ সত্যি নয়।

এই বিতর্কের আবহে ট্রাম্পের ‘বন্ধু’ বলেই পরিচিত রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, মার্কিন প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর দেশের বিদেশমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের সঙ্গে বৈঠকে আলোচ্য বিষয়ের প্রতিলিপি প্রকাশ করতে তাঁরা প্রস্তুত। কারণ দু’জনের মধ্যে ‘নীতি-বিরুদ্ধ’ কোনও কথা হয়েছে, বিশ্বাস করেন না তিনি। রসিকতা করে পুতিন বলেন, ‘সত্যি বলছি, লাভরভ আমাকেও বলেননি, ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর কী কথা হয়েছিল!’

১৮/৫/২০১৭/০-১০০-১৮/অ/হা/

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।