গ্রীষ্মকাল, শনিবার, ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৬শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, দুপুর ২:০৪
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

পারল না বাংলাদেশ টি-২০তে ও…..

admin

ডেস্ক রিপোর্ট ,বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

পারল না বাংলাদেশ। ১৫৫ রানের পুঁজি নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে আটকে দিতে পারল না। কুশল পেরেরার দারুণ ফিফটিতে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার আগে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৫৫ রান করেছিল বাংলাদেশ। জবাবে ৪ উইকেট হারিয়ে ৭ বল বাকি থাকতেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা।

একই মাঠে আগামী বৃহস্পতিবার হবে দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচ। সেই ম্যাচটি খেলেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

পেরারাকে ফেরালেন তাসকিন: মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বলে কুশল পেরেরার ক্যাচ ফেলেছিলেন তাসকিন আহমেদ। সেই তাসকিনই বোলিংয়ে এসে আউট করেন পেরেরাকে। কিন্তু ততক্ষণে যে অনেক দেরি হয়ে গেছে! ৫৩ বলে ৯ চার ও এক ছক্কায় ৭৭ রান করেন পেরেরা।

 

সাব্বিরের দুর্দান্ত রানআউট: মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের আগের বলে কুশল পেরেরার ক্যাচ ফেলেন তাসকিন আহমেদ। পরের বলে সরাসরি থ্রোয়ে আসেলা গুনারত্নেকে (১৭) রানআউট করেন সাব্বির রহমান। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ৩ উইকেটে ১২০।

ক্যাচ ফেললেন তাসকিন: অভিষেকে তৃতীয় ওভারেই  উইকেট পেতে পারতেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। কিন্তু শর্ট ম্যানে কুশল পেরেরার ক্যাচ ফেলেন তাসকিন আহমেদ। ৬৫ রানে জীবন পান পেরেরা।

পেরেরার ঝোড়ো ফিফটি: চোটের কারণে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে পারেননি। টি-টোয়েন্টিতেও খেলা নির্ভর করছিল ফিটনেস পরীক্ষার ওপর। সেই পরীক্ষা উতরে কুশল পেরেরা খেললেন। আর প্রথম ম্যাচেই তুলে নিলেন দারুণ এক ফিফটি। মোসাদ্দেক হোসেনকে চার মেরে ৩১ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

মাশরাফির জোড়া আঘাত: আগের ওভারে উপুল থারাঙ্গাকে ফিরিয়ে ৬৫ রানের জুটি ভাঙেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। পরের ওভারে এসে নতুন ব্যাটসম্যান দিলশান মুনাবীরাকেও সাজঘরের পথ দেখান বাংলাদেশ অধিনায়ক। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ নিয়েছেন এই সিরিজ শেষেই টি-টোয়েন্টিকে বিদায় বলতে যাওয়া মাশরাফি।

জুটি ভাঙলেন মাশরাফি: ইনিংসের সপ্তম ওভারে শ্রীলঙ্কার ৬৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ অধিনায়কের বলে শর্ট থার্ডম্যানে মুস্তাফিজুর রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা (২৪)।

পাওয়ার-প্লেতে শ্রীলঙ্কার পঞ্চাশ: বোলিংয়ের শুরুটা ভালোই হয়েছিল বাংলাদেশের। অধিনায়ক মাশরাফি প্রথম ওভারেই বল তুলে দেন মাহমুদউল্লাহর হাতে। অফ স্পিনার দেন মাত্র ২ রান। কিন্তু পরের ওভার থেকেই পাল্টে যেতে থাকল চিত্র। বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হলেন দুই শ্রীলঙ্কান ওপেনার কুশল পেরেরা ও উপুল থারাঙ্গা। তাতে পাওয়ার-প্লের ৬ ওভারে স্বাগতিকরা তুলল বিনা উইকেটে ৫৭ রান।

শ্রীলঙ্কার লক্ষ্য ১৫৬: প্রথম টি-টোয়েন্টি আগে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৫৫ রান করেছে বাংলাদেশ। জিততে হলে শ্রীলঙ্কাকে করতে হবে ১৫৬ রান। বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৪ রানে অপরাজিত ছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন। শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা ২৮ রানে নিয়েছেন সর্বোচ্চ ২ উইকেট।

জুটির ফিফটির পর ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ: নিজের কোটার শেষ ওভারের প্রথম বলেই ৫৭ রানের ষষ্ঠ জুটি ভাঙেন মালিঙ্গা। লঙ্কান পেসারের বলে বোল্ড হওয়া মাহমুদউল্লাহ ২৬ বলে ৩ চারে করেন ৩১ রান।

বাংলাদেশের একশ পার: ১৪ ওভারে বাংলাদেশের রান একশ পেরিয়েছে। কিন্তু তার আগেই ফিরে গেছেন পাঁচ ব্যাটসম্যান।

পারলেন না সাকিবও: দলের বিপদের সময় হাল ধরতে পারলেন না সাকিব আল হাসানও। সিকুগে প্রসন্নর অফ স্টাম্পের বাইরের বলে পয়েন্টে গুনারত্নেকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ১৫ বলে ১১ করেন সাকিব। একটা সময় ১ উইকেটে ৫৭ থেকে বাংলাদেশ তখন ৫ উইকেটে ৮২। ২৫ রানেই নেন ৪ উইকেট!

আরেকবার ব্যর্থ মুশফিক: ওয়ানডে সিরিজটা ভালো কাটেনি। দুই ইনিংসে ব্যাটিং পেয়ে রান করেছেন মাত্র ১। প্রথম টি-টোয়েন্টিতেও মুশফিকুর রহিমের ব্যাট ছুঁল না দুই অঙ্ক। আউটও হলেন বাজেভাবে। আসেলা গুনারত্নের বলে স্কুপ করতে গিয়ে বোল্ড। ৯ বলে ৮ রান করেন মুশফিক। বাংলাদেশের রান তখন ৪ উইকেটে ৭০।

জোড়া ধাক্কা: ওভারের প্রথম বলে রানআউট হয়ে ফিরে গেছেন সঙ্গী সাব্বির রহমান। সৌম্য সরকার বিকুম সঞ্জয়ার পরের তিনটি বল দিলেন ডট। লঙ্কান পেসার পঞ্চম বলটি করলেন স্লোয়ার। সৌম্য ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বল তুলে দিলেন আকাশে। ক্যাচ নিতে কোনো ভুল হলো না থিসারা পেরেরার। ২০ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় শেষ হয় সৌম্যর ২৯ রানের ছোট্ট ঝোড়ো ইনিংসটি। একই ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে বাংলাদেশ। ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ৩ উইকেটে ৫৮।

রানআউটের বলি সাব্বির: বেশ ভালোই জমে উঠেছিল সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমানের দ্বিতীয় উইকেট জুটিটা। কিন্তু সাব্বিরের রানআউটে শেষ হয় ৫৭ রানের জুটিটা। স্বাগতিক পেসার বিকুম সঞ্জয়ার অফ স্টামের বল কাভারে ঠেলে সিঙ্গেল নিতে গিয়েছিলেন সাব্বির। কিন্তু সরাসরি থ্রোয়ে বোলার প্রান্তের স্টাম্প ভেঙে দেন সিকুগে প্রসন্ন, রানআউট। ১৪ বলে ২ চারে সাব্বির করেন ১৬।

সৌম্য-সাব্বির জুটির ফিফটি: ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ফিরে যান তামিম ইকবাল। তবে দ্বিতীয় উইকেটে সাব্বির রহমানকে সঙ্গে নিয়ে শ্রীলঙ্কার বোলারদের ওপর পাল্টা আক্রমণ শুরু করেন আরেক ওপেনার সৌম্য সরকার। দারুণ সব শট খেলে দুজন পূর্ণ করেন জুটির পঞ্চাশ। ৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১ উইকেটে ৫৭। তখন সৌম্য ১৬ বলে ২৯ ও সাব্বির ১৩ বলে ১৬ রানে ব্যাট করছিলেন।

তামিমকে হারিয়ে শুরু: ব্যাটিংয়ের শুরুটা মোটেই ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই তামিম ইকবালের উইকেট হারিয়েছে সফরকারীরা। শ্রীলঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গার বলটি সুইং করে ঢুকেছিল ভেতরে। বল তামিমের ব্যাট ফাঁকি দিয়ে প্যাডে লেগে আঘাত করে লেগ আর মিডল স্টাম্পে। তামিম মেরেছেন ডাক। বাংলাদেশের রানও তখন শূন্য!

কমছে না ওভার: বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ের ৪৫ মিনিট পর শুরু হয়েছে ম্যাচ। তাতে অবশ্য কমেনি কোনো ওভার। খেলা হবে পুরো।

শুরুর আগেই বৃষ্টির বাগড়া: টসের পর তখন দুই দলের জাতীয় সঙ্গীত চলছিল। এমন সময়ে আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে হানা দিল বৃষ্টি। জাতীয় সঙ্গীত শেষ করেই ক্রিকেটাররা ছুটে গেলেন ড্রেসিংরুমে। এমন বৃষ্টিতে স্বাভাবিকভাবেই নির্ধারিত সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ম্যাচ শুরু করা যায়নি।

সাইফউদ্দিনের অভিষেক: টি-টোয়েন্টি দলে ডাক পেয়ে দেশ থেকে শ্রীলঙ্কায় উড়ে গেছেন। আজ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকও হয়ে গেল মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের। ২০ বছর বয়সি এই পেস বোলিং অলরাউন্ডারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেই অভিষেক হলো আজ।

মাশরাফির শেষ সিরিজ: শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের এই টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে এই ফরম্যাট থেকে অবসর নেবেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রথম ম্যাচের টসের সময় মাশরাফি নিজেই দিয়েছেন এই ঘোষণা।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ: প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা জানান, টস জিতলে তিনিও ব্যাটিং নিতেন।
বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।
শ্রীলঙ্কা দল: উপুল থারাঙ্গা (অধিনায়ক), কুশল পেরেরা, দিলশান মুনাবীরা, চামারা কাপুগেদারা, আসেলা গুনারত্নে, মিলিন্ডা সিরিবর্ধনা, থিসারা পেরেরা, সিকুগে প্রসন্ন, নুয়ান কুলাসেকারা, লাসিথ মালিঙ্গা ও বিকুম সঞ্জয়া।

মিরপুর ফিরবে কলম্বোয়?: শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এর আগে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলে চারটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশের একমাত্র জয়টি দুই দলের সর্বশেষ দেখায়। ২০১৬ সালে মিরপুরে এশিয়া কাপের ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ২৩ রানে হারিয়েছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। মিরপুরের সেই জয় কলম্বোতেও টেনে নিতে পারবেন মাশরাফি-সাকিবরা?

 

৫/৪/২০১৭/১৯০/তৌ/আ/

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।