গ্রীষ্মকাল, মঙ্গলবার, ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,২৯শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি, সকাল ৯:৪৯
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর |

সারাদেশ

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

৩২ জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা বিদ্যুৎহীন…

admin

ইব্রাহিম খলিল প্রধান, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

কালবৈশাখী ঝড়ে জাতীয় গ্রিডের আশুগঞ্জ-সিরাজগঞ্জ ও ঘোড়াশাল-ঈশ্বরদী সঞ্চালন লাইন ট্রিপ করায় দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সব বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। এর ফলে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে এই ২ অঞ্চলের প্রায় ৩২ জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশের (পিজিসিবি) সহকারী ম্যানেজার (জনসংযোগ) এবিএম বদরুদ্দোজা খান জানান, বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বরিশাল, রাজশাহী, খুলনা ও রংপুর জোনে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

তবে বিকেলের মধ্যেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসতে শুরু করে। বিভিন্ন জায়গায় পর্যায়ক্রমে বিদ্যুৎ সরবরাহও শুরু হয়। পিজিসিবি সূত্র জানিয়েছে, গতকাল সকাল ১১টা ২০ মিনিটে টর্নেডোতে ঈশ্বরদী-ঘোড়াশাল ২৩০ কেভি জাতীয় গ্রিড বিকল হয়ে পড়ে। আর গত সোমবার ঝড়ে আশুগঞ্জ-সিরাজগঞ্জ ২৩০ কেভি জাতীয় গ্রিড বিকল হয়। এই ২ গ্রিড বিকল হওয়ায় দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে বিদ্যুৎ বিপর্যয় দেখা দেয়। পিডিবির হিসেবে খুলনা বরিশাল রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলে ২ হাজার ৬৬৫ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার ৩৭টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র আছে। গত সোমবার এসব কেন্দ্র থেকে ১ হাজার ৮৪৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে এর বেশিরভাগই বন্ধ ছিল।

পিডিবির হিসেবে খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে ২ হাজার ২৪৯ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার মোট ২৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র রয়েছে। এছাড়া আন্তঃদেশীয় গ্রিড লাইনের মাধ্যমে ভারত থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা হয়ে।

তবে ঠিক কতটি বিদ্যুৎকেন্দ্রে উৎপাদন বন্ধ রয়েছে এবং তাতে সারাদেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে কী পরিমাণ ঘাটতি তৈরি হয়েছে সে তথ্য তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি পিডিবি কর্মকর্তারা।

আশুগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রের এমডি সাজ্জাদুর রহমান জানান, কালবৈশাখী ঝড়ে গত সোমবার রাতে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার কালীপুরে একটি বিদ্যুতের টাওয়ার ভেঙে পড়ে ২৩০ কিলোভোল্টের সরবরাহ লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইন হাই ভোল্টেজ সঞ্চালন লাইনের মধ্যে পড়ে। সারাদেশে পিজিসিবির ৩১৮৫ সার্কিট কিলোমিটার ২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইন রয়েছে। ঐ লাইন মেরামত করার সময় গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টা ২০ মিনিটে ঘোড়াশাল-ঈশ্বরদী সঞ্চালন লাইন ‘ট্রিপ’ করলে এর সঙ্গে যুক্ত রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চল বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে। ঐ ২ জোনের বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোতে উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেলে খুলনা ও বরিশাল জোনেও সরবরাহ ও উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় বলে পিজিসিবির বদরুদ্দোজা খান জানান।

৩/৫/২০১৭/১০/

Share on facebook
Facebook
Share on google
Google+
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

Leave a Reply

সর্বাধিক পঠিত

আরো খবর পড়ুন...

বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম :
প্রধান সম্পাদক : লায়ন মোমিন মেহেদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : লায়ন শান্তা ফারজানা
৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা
email: mominmahadi@gmail.com
shanta.farjana@yahoo.co.uk
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।