হাওর অঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্থরা চালসহ নগদ টাকা পাবে….

ডেস্ক রিপোর্ট , বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

অসময়ের বন্যায় দেশের বিস্তীর্ণ হাওর অঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্ত তিন লাখ ৩০ হাজার পরিবারকে মাসে ৩০ কেজি করে চাল ও ৫০০ টাকা করে দেবে সরকার। পরবর্তী ফসল না ওঠা পর্যন্ত এ সহযোগিতা পাবেন তারা।

রবিবার সচিবালয়ে হাওর এলাকায় সৃষ্ট বন্যার বিষয়ে গৃহীত কার্যক্রম ও করণীয় সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এ তথ্য জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

মন্ত্রী বলেন, বন্যা কবলিত জেলাগুলোর জন্য ১০০ দিনের কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। রবিবার থেকে শুরু করে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত ৩৩-৩৫ হাজার মেট্রিক টন চাল ও ৫০০ কোটি টাকা হাওরবাসীদের মধ্যে বিতরণ করা হবে। এ সময়ের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে যতদিন পানি থাকবে ততদিন তাদের সহায়তা দেয়া হবে।

তিনি জানান, এছাড়া এসব জেলার ক্ষতিগ্রস্ত আরো (যারা রিলিফ নেবেন না) এক লাখ ৭১ হাজার ৭১৫ পরিবারকে ওএমএসের মাধ্যমে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল এবং খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজিতে চাল দেয়া হবে।ফসল না ওঠা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্তরা এ সহায়তা পাবেন।

বন্যা প্লাবিত এলাকায় সরেজমিন পরিদর্শন করে ক্ষয়ক্ষতি নির্ধারণ করে সুপারিশ দিতে সভায় একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটিও গঠন করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

এদিকে একইদিন হাওরের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, বাঁধের চেয়ে পানির উচ্চতা বেশি হওয়ায় হাওর এলাকা বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। হাওরে বাঁধ নির্মাণে কোনো দুর্নীতি হয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

চলতি মাসের শুরুতেই অসময়ে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোণার বিস্তীর্ণ এলাকায় বোরো ধান তলিয়ে যাওয়ায় সর্বস্বান্ত হয়েছেন লাখ লাখ কৃষক।

২৩/৪/২০১৭/২৩০/ম/জা/