সুন্দরবন সীমান্তে বিজিবি’র ভাসমান নজরদারি

স্টাফ রিপোটার (সুন্দরবন) : ;বাংলারিপোর্ট২৪.কম

 

 

সুন্দরবনে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের অরক্ষিত ৩৮ কিলোমিটার সীমানা নজরদারিতে এনেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ

(বিজিবি)। সুন্দরবনের গহীনে আঠারোবেকীতে দ্বিতীয় বর্ডার অবজারভেশন পোস্ট (বিওপি) উদ্বোধনের মাধ্যমে এ নজরদারি শুরু হলো।

বিজিবি’র মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল আবুল হোসেন  বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) দুপুর ১টায় সুন্দরবনের সাতক্ষীরা অঞ্চলের আঠারবেকীতে দ্বিতীয় এই ভাসমান বিওপি উদ্বোধন করেন।

এ সময় বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, সুন্দরবনের বাংলাদেশ ভারত সীমান্তে নারী ও শিশু পাচার, চোরাচালান, অবৈধভাবে বিদেশি জাহাজ চলাচলসহ জলদস্যুদের প্রতিরোধে এবং বিস্তৃর্ণ সুন্দরবনের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে এই ভাসমান বিওপি কাজ করবে।

বিওপি’টি রায়মঙ্গল নদী ও আঠারোবেকী খালের সংযোগ স্থলে অবস্থিত। এই বিওপিতে দুইজন অফিসারের নেতৃত্বে বিজিবি’র ৩৫ জন সদস্য দায়িত্বে থাকবেন। তারা ভাসমান এই বর্ডার অবজারভেশন পোস্টের (বিওপি) মধ্যে থেকেই সীমান্ত এলাকায় নজরদারির কাজে নিয়োজিত থাকবেন।

নদী পথে চোরাচালান রোধ ও বনের ভেতরে জলদস্যুতা প্রতিরোধে সাতক্ষীরা অঞ্চলের সুন্দরবনে এটাই বিজিবি’র দ্বিতীয় বিওপি।

এর আগে, ২০১৩ সালে সাতক্ষীরা নীলডুমুর ৩৪ বিজিবির আওতাধীন সুন্দরবনের গহীনে কাঁচিকাটা খালে প্রথম ভাসমান বিওপি-১ উদ্বোধন করেন তৎকালিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহিউদ্দীন খান আলমগীর।

 

৩০/৩/২০১৭/২৩০/সা/ফা/