বৃষ্টিকে হার মানিয়ে ঈদের আগাম টিকিটের জন্য দীর্ঘ লাইন…

তৌহিদ আজিজ, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

পূর্বনির্ধারিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো যাত্রীদের জন্য বাস ও ট্রেনের

অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ৮টা থেকে ঢাকার কমলাপুর ও চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে একযোগে এ টিকিট বিক্রি শুরু হয়। পাশাপাশি সায়েদাবাদ, কল্যাণপুরসহ বিভিন্ন স্থানের কাউন্টার থেকে বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। অন্যদিকে আজ সকাল থেকেই ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলছে বৃষ্টি। আর সে প্রতিকূলতা উপেক্ষা করেই বাস ও ট্রেন কাউন্টারগুলোতে দেখা গেছে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশী যাত্রীদের দীর্ঘ লাইন।

এবারের ঈদে দুর্ভোগ দূর করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ জানান, এবারের ঈদে স্বল্প দূরত্বের বাসগুলো দৈনিক দুই থেকে তিনবার যাতায়াত করবে। আর দূরপাল্লার বাসগুলো একটি করে ট্রিপ দেবে। সব মিলিয়ে বর্তমানে ঢাকা থেকে ১০ হাজার ভালো বাস প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন রুটে ছেড়ে যাবে। এছাড়া, ঈদের জন্য আরো ৩ হাজার বাসের ব্যবস্থা রয়েছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ রেলওয়ে টানা ৫ দিন ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি করছে। ঢাকায় কমলাপুর রেলস্টেশন এবং চট্টগ্রাম রেলস্টেশন থেকে এসব টিকিট বিক্রি হবে। সকাল ৮টায় শুরু হবে ট্রেনের টিকিট বিক্রি। একজন যাত্রী সর্বাধিক চারটি টিকিট কিনতে পারবে। আগাম বিক্রি হওয়া টিকিট ফেরত নেয়া হবে না বলে রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে। প্রসঙ্গত, আজ ১২ জুন বিক্রি হবে ২১ জুনের টিকিট, ১৩ জুন ২২ জুনের, ১৪ জুন ২৩ জুনের, ১৫ জুন ২৪ জুনের, ১৬ জুন বিক্রি হবে ২৫ জুনের টিকিট। তবে ঈদ উপলক্ষে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন রুটে লঞ্চের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১৫ জুন (বৃহস্পতিবার) থেকে। গতকাল ঢাকা নদীবন্দর সদরঘাট টার্মিনাল মিলনায়তনে নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগ আয়োজিত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এদিকে সকাল থেকে বৃষ্টি উপেক্ষা করেই বাস ও ট্রেন কাউন্টারগুলোতে দেখা গেছে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশী যাত্রীদের দীর্ঘ লাইন। প্রিয়জনদের সাথে পবিত্র ঈদ পালনে প্রতিকূল আবহাওয়াও যেন বাধা হতে পারছে না উচ্ছ্বাসিত যাত্রীদের মনে।

 ১৩-০৬-১৭-০০-৩০