বিপদ শেষ, সৌদির নাগরিক জাকির নায়েকের…

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

বিতর্কিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েককে নাগরিকত্ব দিয়েছে সৌদি আরব। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়। সন্ত্রাসবাদে উস্কানির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ভারতে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে।

আরব সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ইন্টারন্যাশনাল পুলিশ অর্গানাইজেশন-ইন্টারপোল যাতে জাকির নায়েককে গ্রেফতার করতে না পারে সেজন্য সৌদি বাদশা সালমান বিন আব্দুলআজিজ আল সৌদ তার নাগরিকত্ব অনুমোদন দিয়েছেন।

গত জুলাইয়ে ঢাকার হলি আর্টিজান রোস্তারাঁয় জঙ্গি হামলার পর অভিযোগ ওঠে সন্দেহভাজন হামলাকারীদের কয়েকজন পিস টিভিতে জাকির নায়েকের ভাষণ শুনে সন্ত্রাসবাদে উদ্বুদ্ধ হয়। এ ঘটনার পর ভারতের পুলিশ প্রশাসন পিস টিভি সম্প্রচার বন্ধ করতে স্থানীয় কেবল অপারেটরদের নির্দেশ দেয়। তার এনজিও সংস্থা আইআরএফ-কেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে মামলা হলে সৌদিতে থাকা জাকির নায়েক আর ভারতে ফেরেননি।

সন্ত্রাসবাদে সংশ্লিষ্টতা ও মুদ্রা পাচারের মামলায় মহারাষ্ট্রে জন্ম নেয়া এই টিভি বক্তার বিরুদ্ধে গত মাসে দ্বিতীয়বারের মতো গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল ভারতের একটি আদালত। ওই সময় মালয়েশিয়া সফরে ছিলেন তিনি। জাকির নায়েক তখন ভারত না ফেরার এবং মালয়েশিয়ায় থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। পাঁচ বছর আগে তাকে মালয়েশিয়ায় স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দিয়েছিল ওই দেশের সরকার।

দ্বিতীয় গ্রেফতারি পরোয়ানার পর ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, জাকির নায়েকের পাসপোর্ট প্রত্যাহার এবং তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে ইন্টারপোলকে অনুরোধ করবে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। ধারণা করা হচ্ছিল, পাসপোর্ট বাতিল করা হলেই জাকির নায়েক ভারতে ফিরতে বাধ্য হবেন। তবে সৌদি সরকার নাগরিকত্ব দেয়ায় সেই সুযোগ আর থাকলো না।

২০-০৫-২০১৭-০০-৬০-২০-ম-জা