বদভ্যাস হয়ে ওঠে অবসাদের কারণ…

ডেস্ক রিপোর্ট ,বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

চারপাশে ক্রমশই বেড়ে চলেছে অবসাদ। বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় সমস্যা অবসাদ। আমাদের পরিবার, বন্ধু-বান্ধব, এমনকী নিজেরাও কখনও অবসাদে ভুগি। কখনও নিজেরা বুঝতেও পারি না ঠিক কী কারণে হচ্ছে অবসাদ। অনেক সময়ই আমাদেরই কিছু বদভ্যাস হয়ে ওঠে অবসাদের কারণ। যদি আপনার থেকে থাকে এই অভ্যাসগুলো তা হলে অবশ্যই কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করুন।

১। ধূমপান ও মদ্যপানের নেশা
কাজের চাপ, স্ট্রেস, সম্পর্কের টানাপড়েন থেকে হওয়া মানসিক চাপ কাটাতে অনেকেই ধূমপান বা মদ্যপানের মধ্যে মুক্তি খোঁজেন। এই সব নেশাই কিন্তু এক সময় মাথায় চেপে বসে এবং নিজের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। দীর্ঘ দিন ধরে নেশা অবসাদ ডেকে আনে।

২। নিজেকে একা করে নেওয়া
নিউক্লিয়াস ফ্যামিলি, বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান, প্রতিযোগিতার কারণে অনেকেই ছোট থেকে একা থাকতে অভ্যস্ত হন। বড় হয়েও তারা অনেক সময়ই পরিবার, বন্ধু-বান্ধবের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন। এই একাসেরে অভ্যাস কিন্তু চাপা অবসাদ ডেকে আনে।

৩। অতিরিক্ত নিউজ ফিড দেখা
আপনি কি খবর পড়তে, সব সময় আপডেটেড থাকতে ভালবাসেন? সেই কারণেই সারা দিন টিভিতে খবর দেখেন বা নিজের ফোনে নিউজ ফিড সার্চ করে চলেন। এটা কিন্তু একটা নেশা। কিন্তু মনে রাখবেন, আমাদের চারপাশের বেশির ভাগ খবরই কিন্তু নেগেটিভ। ক্রমাগত দুর্ঘটনা, খুন, ধর্ষণ, বিস্ফোরণের খবর দেখতে দেখতে কিন্তু আমাদের মনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। যা আমাদের ভাবনা-চিন্তাকে নেতিবাচক করে দেয়। ফল হয় অবসাদ।

৪। অতিরিক্ত বা অস্বাস্থ্যকর খাওয়া
যখনই মুড অফ হয় বা রাগ হয় বা একঘেয়ে লাগে, তখন অনেকেরই অভ্যাস থাকে মিষ্টি খাওয়ার। কেউ কেউ চকোলেট, কুকিজ, আইসক্রিম খেয়ে রাগ কমান। অতিরিক্ত চিনি ও রিফাইন্ড কার্বোহাইড্রেট থাকার কারণে এই সব খাবার মুড ভাল করে দিতে পারে। কিন্তু এই সব কমফর্ট ফুডই হয়ে ওঠে ওজন বাড়া, ডায়াবেটিস বা অবসাদের অন্যতম কারণ।

৫। অতীতেত ভুলের জন্য অনুতাপ করা
মনোবিদরা একে বলেন ‘রুমিনেশন।’ অতীতে কোনও ভুল করেছেন বা আপনার সঙ্গে কোনও অন্যায় হয়েছে তা ভেবে বর্তমানেও কষ্ট পাওয়া, অনুতাপ করা। বার বার প্রশ্ন করা কেন আমার সঙ্গেই হল? অতীতকে কখনই বদলাতে পারবেন না। কিন্তু বার বার এ ভাবে ভাবতে ভাবতে বর্তমানকেও অস্বীকার করছেন, ভবিষ্যতকেও ঠিক মতো গ্রহণ করতে পারবেন না। ফলে অবসাদ বাড়তেই থাকবে।

 

৮/৪/২০১৭/১০০/তৌ/আ/