নীল রঙের পোশাকের সাথে নীল মেকআপের খুঁটিনাটি…

ডেস্ক রিপোর্ট , বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

নীল নীল নীলাঞ্জনা গানের নায়িকার মত নীল চোখে চেয়ে না থাকলেও নীল পোশাকে নিজেকে সাজাতে অনেক নারীই পছন্দ করেন। আপনি কি প্রিয় নীল বা নেভি ব্লু পোশাক পরিধান করবেন ভাবছেন? বুঝতে পারছেন না নীল পোশাকের সাথে কি রকম মেকআপ আসলে মানানসই? তবে আসুন আজ টুকটাক এই বিষয়গুলো জানা যাকঃ

রঙ নিয়ে খেলা করুন- রঙের ব্যাপারে কমপ্লিমেন্টরি রঙের দিকে খেয়াল দেয়াটা জরুরী। নীল রঙ এর কমপ্লিমেন্টরি রঙ হল লাল আর কমলা। তাই নীল পোশাকের সাথে মেকআপে আপনি ব্যবহার করতে পারেন কোরাল, লাল, কমলা, পিচ বা বাদামী রঙ।

আর যদি রঙের বোঝাপড়ায় ভিন্নতা আনতে চান তবে নীল পোশাকের সাথে নীল রঙই মেকআপে ব্যবহার করতে পারেন। নেহাৎ মন্দ লাগবেনা কিন্তু।

বেস মেকআপ- আপনি ঠিক কি ধরনের বেস করতে চাচ্ছেন এটি তার উপর নির্ভর করবে। যদি নীল পোশাকে কোন পার্টি বা অনুষ্ঠানে যেতে চান তবে বেস হিসেবে লাল বা গাঢ় কমলা রঙকে প্রাধান্য দিতে পারেন। আর হালকা সাজের মাঝে থাকতে চাইলে উজ্জ্বল সবুজ বা নীল রঙকে বেছে নিতে পারেন।

ফাউন্ডেশনের ক্ষেত্রে বেছে নিন আপনার বাস্তব শেড থেকে এক শেড গাঢ় ফাউন্ডেশন। এটি আপনাকে দিবে একটি সুন্দর লুক আর বিচ্ছিরি মেকআপের কারনে নষ্ট হবেনা কোন ছবি। আর আপনি যদি উজ্জ্বল ত্বকের অধিকারী হন, তবে নীল পোশাকের সাথে ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করে নরমাল পাউডার ব্যবহার করলেই চলবে।

চিক বা গালের মেকআপ- চিক মেকআপ কখনোই আপনার মেকআপের মূল আকর্ষণ নয় তবে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। নীল একটি শান্ত রঙ। তাই এর সাথে ভারী রঙের ব্লাশ মোটেই শোভনীয় নয়। আপনি চাইলে হালকা গোলাপি রঙের ব্লাশ ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনার গালে গোলাপি আভা এনে দিবে এনং শিশুসুলভ চাহনি তৈরি করবে।

ব্লাশ করার ক্ষেত্রে গালের ফোলা জায়গায় তিন ফোটা ব্লাশন দিন। এবার ব্রাশ দিয়ে প্রথমে গোলাকার ভাবে ব্লাশ করুন এবং পরে সোজা টেনে কান পর্যন্ত নিয়ে যান।

আপনি চাইলে ব্রোঞ্জ রঙও ব্লাশ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন নীল পোশাকের সাথে। এক্ষেত্রে, গালের হাড় (চিকবোন) এর নিচে সোজা দুটি রেখা গাল থেকে কান অব্দি টেনে নিন। এরপর ব্লেড করে দিন।

চোখের সাজ- নীল পোশাকের সাথে চোখ সাজাতে সবুজ আর নীল রঙকে বেছে নিন। এই রঙ দুটি চোখের সাজে অন্যরকম মাত্রা এনে দেয়। কোন পার্টিতে গেলে নিঃসন্দেহে স্মোকি আই লুক মানিয়ে যাবে নীল পোশাকের সঙ্গে।

গ্লিটার ব্যবহার করতে চাইলে সোনালী রঙ ব্যবহার করতে পারেন। চোখের শেড যে পোশাকের রঙের সাথে পুরোপুরি মিলতে হবে তা কিন্তু নয়। ভিন্ন শেডের শ্যাডো নিন। গাঢ় রং মাঝ বরাবর দিয়ে, হালকা রংকে পাশে রেখে ব্লেড করুন। চমৎকার লাগবে আপনাকে।

ঠোটের সাজ- চোখে যদি ভারী সাজ দিয়ে থাকেন তবে অবশ্যই ঠোটে নুড কালার ব্যবহার করুন। লিপ ব্লাম দিয়ে, নুড কালারের লিপস্টিক দিন। এরপর একটু গাঢ় রঙের লিপলাইনার এঁকে নিন।

আর আপনার চেহারার মূল আকর্ষণ যদি ঠোটে ধরে রাখতে চান, তবে অবশ্যই লাল রঙ বেছে নিন। নীল পোশাকের সাথে লাল লিপস্টিক অন্যরকম এক আবেদনের সৃষ্টি করে। চাইলে গোলাপি বা পিচ রঙও ব্যবহার করতে পারেন।

বাদবাকি যা কিছু- যদি নীল শাড়ি পরে থাকেন তবে হাতে একগোছা লাল চুড়ি বেশ মানাবে আপনাকে। সাথে কপালে লাল টিপ। নীল ফতুয়া, গাউন, সেলোয়ার কামিজ পরলে গলায় পরতে পারেন লাল, কমলা বা গোলাপি রঙের মালা। আবার নীলের সাথে সাদা আনুষঙ্গও অন্যরকম সৌন্দর্যের সৃষ্টি করে।

কে বলেছে নীল পোশাকে আপনাকে মানায় না? এবার নীল পোশাক পরে, ছোটখাটো এই মেকআপ টিপস গুলো কাজে লাগান। যেকোন অনুষ্ঠানে মানিয়ে যাবেন অনায়াসে প্রিয় নীল রঙে।

২৪/৪/২০১৭/২১০/তৌ/আ/