কিশোরীকে উদ্ধার নিষিদ্ধ পল্লী থেকে…

 ডেস্ক রিপোর্ট , বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

ফেসবুক মেসেজের মাধ্যমে নয়া দিল্লীর নিষিদ্ধ পল্লী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এক কিশোরীকে। ১৫ বছরের ওই কিশোরীকে অপহরণ করে দিল্লির জিবি রোডের নিষিদ্ধ পল্লীতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে গিয়ে কিশোরীর খোঁজ পেয়ে ফেসবুকে তার সম্পর্কে লেখেন ২৫ বছরের এক যুবক।

কিশোরীর ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে দিল্লি পুলিশ ওই ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করে শনিবার রাতে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। মেয়েটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে সে বিহারের বাসিন্দা। ছোট বেলাতেই মারা গিয়েছেন তার মা-বাবা।

বিহারে নিজের চাচার বাড়ি থেকে অজ্ঞাত এক মহিলা তাকে অপহরণ করেছিল বলে জানায় কিশোরী। সেই মাত্র ৯ বছর বয়সে দিল্লির ওই নিষিদ্ধ পল্লীতে বিক্রি করে দেয়। মাত্র ১১ বছর বয়সে তাকে এই ব্যবসায় জোর করে কাজ শুরু করানো হয়।

এর আগে বহুবার ওই নিষিদ্ধ পল্লী থেকে পালনোর চেষ্টা করেছে কিশোরী। কিন্তু সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো থাকায় প্রত্যেকবারই ধরা পড়ে যায়। এরপর ওই যুবকের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করে কিশোরী। কিন্তু তাদের কথপোকথন শুনে ফেলে ওখানকার একজন। এমনকি ওই যুবককে ধরে মারধরও করা হয়। এরপরই সে মেয়েটির সমস্যার কথা জানিয়ে ফেসবুকে লেখে। তার বয়ানের ভিত্তিতেই কিশোরিকে নিষদ্ধ পল্লী থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

কিশোরী জানিয়েছে, সেখানে থাকাকালে তার জীবন সংশয়ও হয়েছে। তাই গণিকালয়ের মালিকের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে চায় সে। তবে পুলিশ এখনো কোনো মামলা দায়ের করেনি।

১৪/৫/২০১৭/২৫০/আ/হৃ/