ইসলামী ব্যাংকের নাম ‘স্বাধীনতা ব্যাংক’ না করলে গণআন্দোলন

মনির জামান, সাব এডিটর, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদেরকে এককালিন ১০ লক্ষ টাকা অনুদান, ইসলামী ব্যাংকের নাম ‘স্বাধীনতা ব্যাংক’ করণ ও সকল যুদ্ধাপরাধীর সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার দাবীসহ নতুনধারার ১১ দিনব্যাপী স্বাধীনতা উৎসবের সমাপনী উপলক্ষে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৭ এপ্রিল শুক্রবার সকাল ১০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের বিপরিতে তোপখানা রোডস্থ নির্মল সেন মিলনায়তনে নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র প্রেসিডিয়াম মেম্বার, বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশন ও জাতীয় মুক্তিযোদ্ধাধারার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কৃষকবন্ধু আবদুল মান্নান আজাদের উদ্বোধনী বক্তব্যর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী। বক্তব্য রাখেন নতুনধারা বাংলাদেশ-এনডিবি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান প্রিন্সিপাল শান্তা ফারজানা, প্রেসিডিয়াম মেম্বার আহমেদুল কবির খান কিরন, যুগ্ম মহাসচিব ডা. নূরজাহান নীরা, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এনডিবি’র সভাপতি মাহামুদ হাসান তাহের, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবকধারার সভাপতি মনির জামান, সহ-সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন সাগর, জাতীয় ধর্মধারার নেতা মাওলানা মহিউদ্দিন মোস্তাক বিল্লাহ, জাতীয় শিক্ষাধারার সহ-সভাপতি মামুন বাবুল, সহ-সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আল ইরফান, জাতীয় সাংস্কৃতিকধারার সহ-সভাপতি কবি আলতাফ হোসেন রায়হান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এনডিবি’র সভাপতি অপূর্ব হাসান, সিরাজগঞ্জ জেলা এনডিবির যুগ্ম আহবায়ক শেখ রেজাউল করিম, কুমিল্লা জেলা এনডিবি’র যুগ্ম আহবায়ক দিলিপ কুমার, মোহাম্মদ আলী বুদ্দু, মো. বাবুল, মো. সজিব প্রমুখ।

১১ দিনব্যাপী স্বাধীনতা উৎসবের সমাপনী এই সভায় বক্তারা বলেছেন, ইসলামী ব্যাংকের নাম ‘স্বাধীনতা ব্যাংক’ না করলে গণআন্দোলন। আমরা চাই ইসলাম, হিন্দু বা অন্য সকল ধর্ম নিয়ে রাজনীতি-ব্যবসা বন্ধ হোক।