আদালতে হাজিরা দিচ্ছে ২৮টি ছাগল…

ডেস্ক রিপোর্ট, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

বলা হয়ে থাকে, ‘বাঘে ছুঁলে আঠার ঘা, পুলিশ ছুঁলে ছত্রিশ ঘা’। সেটাই সত্যি প্রমাণিত

হলো ভারতের ঝাড়খণ্ডে। তবে কোনো দাগি আসামির ক্ষেত্রে নয়, ঘটেছে ২৮টি ছাগলের সাথে।

২০ দিন আগে দুই মালিকের সঙ্গে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছিল তারা। মালিকরা

জামিন পেয়ে গেলেও এখনো তারা পুলিশি হেফাজতেই আছে। তাদের খাওয়াদাওয়ার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল এক পুলিশকর্মীকে। কিন্তু কাজের চাপে এখন এক স্থানীয় ব্যবসায়ীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তাদের দেখাশোনার। ওই ব্যবসায়ী ভেবেছিলেন হয়তো কয়েকেদিনের ব্যাপার, কিন্তু পুলিশের কাছ থেকে তাদের দায়িত্ব নিয়ে বলা যায়, তিনি এখন ফেঁসে গেছেন।

জানা যায়, লাইসেন্সবিহীন মাংসের দোকান বন্ধের অভিযান শুরুর পর ঝাড়খণ্ডে ধরপাকড় শুরু হয়। ২৬ এপ্রিল রাঁচির মহকুমা শাসকের নেতৃত্বে এরকমই একটি অভিযান চলাকালে কঠহল মোড়ের মাংসের দোকানের দুই মালিকসহ ২৮টি ছাগল আটক হয়। দোকান মালিক বাবলু মনসুরি আর সাবির খান জামিন পেয়ে গেছেন। কিন্তু একই সঙ্গে আটক হওয়া

১৬/৫/২০১৭/০-১৭০-১৬/ম/জা/