অবশেষে সার্থক অনশন প্রেমীকার…

অপূর্ব হাসান, বাংলারিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকম

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৮ দিন ধরে অনশন করার পর প্রেমিক বিয়ে করার অঙ্গীকারনামা সম্পাদন করে বিয়ে করতে রাজি হয়েছেন। পরে মেয়েটিকে তার স্বজনরা বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে গেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী ও নলডাঙ্গা থানা সূত্রে জানা যায়, দেড় বছর আগে নলডাঙ্গা উপজেলার একজন স্বাস্থ্য সহকারী বিয়ের পাত্রী দেখার জন্য রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় যান। সেখানে দেখাশোনার পর উভয়ের অভিভাবকরা বিয়েতে অসম্মতি জানান। তাই বিয়ে হয় না। তবে ওই দিন পাত্র-পাত্রীর মধ্যে দেখা হয়; পরে তারা নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ শুরু করেন। এর সূত্র ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। প্রেমিকা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে বের হওয়ার পর বিয়ের জন্য তাগাদা দিতে থাকলে প্রেমিক তা এড়িয়ে চলেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই প্রেমিকা অভিযোগ করেন, সম্পর্কের সূত্র ধরে তিনি প্রেমিকের কাছে নাটোরেও এসেছেন। কিন্তু প্রেমিক বিয়ে করতে রাজি হননি। তিনি অন্য আরেকটি মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করে বিয়ে করার চেষ্টা করছিলেন। খবর পেয়ে ২১ এপ্রিল তিনি তার প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবি করেন। বিয়ে না করলে তিনি অনশন শুরু করেন।

 

অবশেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় দুই পরিবারের অভিভাবক, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ এলাকার লোকজন সালিসি বৈঠকে বসেন। বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত হয়, ১০ দিনের মধ্যে প্রেমিক তাকে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে ঘরে তুলে নেবেন।

৩০/৪/২০১৭/৯০/